Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / আইন-আদালত / খালেদা জিয়ার দুই মামলার জামিন শুনানি রোববার
খালেদা জিয়ার দুই মামলার জামিন শুনানি রোববার

খালেদা জিয়ার দুই মামলার জামিন শুনানি রোববার

আদালত প্রতিবেদক,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কুমিল্লায় একটি হত্যা মামলায় জামিন আবেদনের শুনানি শেষ হয়েছে।  আগামী রোববার কুমিল্লায় দায়ের করা বিশেষ ক্ষমতা আইনে নাশকতা ও নড়াইলে মানহানির মামলা দুটির জামিন শুনানি হবে।
nm Add-583X120-Time-120.Gift_
বৃহস্পতিবার হত্যা মামলায় জামিন শুনানি শেষে বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এদিন রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আবেদনের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। গত রোববার কুমিল্লার দুটি ও নড়াইলের একটি মামলায় জামিন আবেদন করেছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, এ মামলার বিএনপি চেয়ারপারসন হুকুমের আসামি। তিনি টেলিফোনে বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকাসহ অন্যান্য নেতাদের বলেছেন, ‘‘সবাইকে মাঠে নামতে বলো, ঘরে বসে থাকলে চলবে না।” সে নির্দেশনার প্রেক্ষিতে ৮ জন ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছিলেন। তিনি বলেন, মোকদ্দমাটি যেখানে জেলা জজ আদালতে বিচারাধীন আছে সেখানে বিচারাধীন রেখে হাইকোর্ট ডিভিশনের কোন আদেশ দেয়া ঠিক হবে না।
ADD SB News P
শুনানি শেষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সংবাদিকদের বলেন, ‘‘কুমিল্লার হত্যা মামলায় জামিনের শুনানি শেষ হয়েছে। আরও দুটি মামলা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আছে, একটি গাড়ি পোড়ানো অপরটি মানহানির মামলা। এ দুটি মামলা অর্থাৎ তিনটি মামলাই কার্যতালিকায় থাকবে। এগুলো শুনানির তালিকায় থাকবে। আমি যতটুকু জেনেছি মামলাগুলো শুনে আদালত আদেশ দেবেন।”

খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বলেছেন, রোববার তিনটি আবেদনের শুনানি শেষে সেদিনই আদালত আদেশ দেবেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, “এখানে দুটি মামলা তো এখনো শুনানি হয়নি। একটি হলো গাড়ি পোড়ানো অপরটি হলো মানহানির। এগুলো শুনানির পরে উনারা (আদালত) যদি একসঙ্গে আদেশ দিতে চান তাহলে এ দুটি আবেদন শুনতে হবে। রোববার আদেশ হবে এটা বলা ঠিক হবে না। কারণ আদেশ দেয়া না দেয়া এটা আদালতের এখতিয়ার।”

শুনানিতে অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী। অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা ও ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। সেই থেকে তিনি কারাবন্দি রয়েছেন পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় করাগারে। ওই মামলায় আপিলের পর খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দেন হাইকোর্ট। যা গত ১৭ মে বহাল রাখেন আপিল বিভাগ।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ঢাকা / ২৫ মে ২০১৮ /শুক্রবার/ ০০:১৪

Add SB24-1

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.