Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ছবি ঘর / সিলেটে মাওলানা আবদুল মতীন ফাউন্ডেশন এর কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন
সিলেটে মাওলানা আবদুল মতীন ফাউন্ডেশন এর কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন

সিলেটে মাওলানা আবদুল মতীন ফাউন্ডেশন এর কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন

রশীদ আহমদ, সবুজবাংলা২৪ডটকম (সিলেট) : বাংলাদেশের ইতিহাসে  প্রথমবারের মতো সম্মিলিতভাবে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে ‘আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ এর অধীনে অনুষ্ঠিত দাওরায়ে হাদিস (মাস্টার্স সমমান) পরীক্ষায় মেধাতালিকার শীর্ষ ৪০-এ অবস্থানকারী সিলেট বিভাগের কৃতী তরুণ আলেমদের সংবর্ধনা ও বৃত্তিপ্রদান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ADD SB News P
গত  ২৩ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার বিকেলে মাওলানা আবদুল মতীন ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে সিলেট নগরীর শহীদ সুলেমান হলে এই  সংবর্ধনা ও বৃত্তিপ্রদান অনুষ্ঠিত হয়।

সিলেট বিভাগের অধিবাসী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে সম্মিলিত মেধা তালিকায় চল্লিশের ভিতরে অবস্থনকারী ১৪ জন তরুণ আলেমকে নগদ অর্থ,সম্মাননা ক্রেষ্ট, ডায়রী, কলম উপহার দেয়া হয়।সাথে সাথে ফাউন্ডেশনের স্বপ্নদ্রষ্টা,সিলেটের বরেণ্য আলেম, মাওলানা শায়খ আব্দুল মতীন কে তাঁর জীবনের সিংহভাগ সময় ইলমে দ্বীনের পিছনে ব্যয় করায় তথা শিক্ষার ক্ষেত্রে সিলেটে অনন্য অবদানের জন্য তাঁর হাতে গড়া ছাত্রদের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে তাকে ক্রেস্ট দিয়ে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয় ।

প্রথম পুরস্কার অর্জনকারীকে নগদ ১০ হাজার টাকা এবং পরবর্তী মেধাবীদের ২ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়। অতিথিদের কাছ থেকে তারা এই পুরস্কার গ্রহণ করেন। দুই পর্বে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন যথাক্রমে ফাউন্ডেশনের সভাপতি, বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট হাসান আহমদ এবং সহ সভাপতি ও  সিলেট সরকারী মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো: জিল্লুর রহমান।

সিলেট রিপোর্ট সম্পাদক মুহাম্মদ রুহুল আমীন নগরী ও তরুণ সংগঠক শাহিদ হাতিমীর যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মেধাবী শিক্ষার্থী সংর্বধনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আযাদ দ্বীনী এদারায়ে তা’লিম বাংলাদেশের সহসভাপতি, জামিয়া কাসিমুল উলুম দরগাহে হযরত শাহজালাল (রহ) এর শায়খুল হাদীস মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আযাদ দ্বীনী এদারায়ে তালিম বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা শায়খ আব্দুল বছীর, জামিয়া দারুল কুরআন সিলেটের প্রিন্সিপাল সাবেক এমপি এডভোকেট মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী, ইসলামিক ফাউন্ডেশন সিলেটের সহকারী উপ-পরিচালক মাওলানা শাহ নজরুল ইসলাম, জামিয়া কাসিমুল উলুম দরগাহে হযরত শাহজালাল (রহ) এর শিক্ষা সচিব মাওলানা আতাউল হক জালালাবাদী, ইক্বরা টিভি ইউরোপের ভাষ্যকার মুফতি আব্দুল মুনতাকিম,  জামিয়া কাসিমুল উলুম দরগাহে হযরত শাহজালাল (রহ) এর সিনিয়র শিক্ষক, বিশিষ্ট লেখক মাওলানা জুনাইদ কিয়ামপুরী,বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ এহসান উদ্দীন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা তৈয়্যিবুর রহমান চৌধুরী, জামিয়া দারুল কুরআন সিলেটের শায়খুল হদিস, লেখক-গবেষক মুফতী এহতেশামুল হক কাসিমী, জামিয়া হিদায়েতুল ইসলাম সিলেটের প্রিন্সিপাল মুফতি মুতিউর রহমান,জামিয়া মাহমুদিয়া সুবহানীঘাট সিলেটের মুঈনে মুহতামিম হাফিয মাওলানা আহমদ ছগীর, জামেয়া ইসলামিয়া মানযারুল ইসলাম দলইরগাও মাদরাসার শিক্ষাসচিব মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা রশীদ আহমদ, মুফতি জাকারিয়া আল মাহমুদ প্রমুখ।

ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারী নিউর্ইয়ক প্রবাসী মাওলানা রশীদ আহমদ এর পক্ষে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, জামিয়া মারকাজুল উলুম মোহাম্মদপুর সিলেটের শিক্ষাসচিব মাওলানা নুরুযযামান সাঈদ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের সহ সাধারণ সম্পাদক মাওলানা শাব্বীর আহমদ, জনাব আখতার হোসাইন, হাফেজ খায়রুল হুদা, মাওলানা মাঈনুদ্দীন আহমদ, কবি নজমূল হক চৌধুরী, কবি মুরশেদ আশরাফ, বিশিষ্ট প্রবাসী সমাজ সেবক হুসাইন আনোয়ার, মাওলানা আব্দুল মুক্তাদির, কওমিকণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক মাওলানা ইলিয়াস মশহুদ, মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, মাওলানা আব্দুস সালাম, মুসতাকিম আল মুন্তাজ, হাফিজ নাসির উদ্দীন, মাওলানা জামিল আহমদ, সালেহ আহমদ মশহুদ,ছাহেবজাদা সিদ্দিক আহমদ, আলী আহমদ, সৈয়দ উবায়দুর রহমান প্রমুখ। কুরআন তেলাওয়াত করেন,আবু মারজান নুমানী। সংগীত পরিবেশন করেন হুমায়ুন রশীদ, জুনায়েদ আজহারী।

সর্বশেষে নসিহতপূর্ণ বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের স্বপ্নদ্রষ্টা মাওলানা শায়খ আব্দুল মতীন।তিনি জীবনের সিংহভাগ সময় ইলমে দ্বীনের পিছনে ব্যয় করায় তথা শিক্ষার ক্ষেত্রে অনন্য অবদানের জন্য তাঁর হাতে গড়া ছাত্রদের পক্ষ থেকে তাকে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী বলেন, সিলেট বিভাগের মেধাবী তরুণ আলেমদের সংর্বধনা দিয়ে আমেরিকা প্রবাসী মাওলানা রশীদ আহমদ একটি ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। তাঁর পিতার নামে ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যেমে তরুণ আলেমদের যে ভাবে উৎসাহিত করেছেন, এজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি বলেন, আমাদেরকে আগে ‘জঙ্গি’ বলা হতো। কিন্তু সম্মিলিত বোর্ড ‘আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ’র অধীনে অনুষ্ঠিত দাওরায়ে হাদিস (মাস্টার্স সমমান) পরীক্ষা দেয়ার পরে অনেক মন্ত্রীরা কওমীর আলেম ও এই শিক্ষা ব্যবস্থার প্রশংসা করছেন। তিনি বলেন, বিগত পরীক্ষায় সারা দেশে ২০ হাজার পরীক্ষাথীর মধ্যে ১৫ হাজার পুরুষ আলেম এবং ৫ হাজার মহিলা দাওরায়ে হাদীস পরীক্ষায় অংশ নিয়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন। তিনি প্রতি বছর এই শিক্ষাবৃত্তি চালুর আহবান জানান। মাওলানা আব্দুল বছীর বলেন, কওমী মাদরাসা শিক্ষাই হচ্ছে প্রকৃত শিক্ষা,যেখানে নকলবাজীর কোন স্থান নেই। এখানে প্রশ্নপত্র ফাস হয়না। তাই রাষ্ট্রিয় ভাবে এই শিক্ষাকেই আর্দশ শিক্ষা হিসেবে ঘোষণা করাউচিত।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ তথা উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন,শায়খুল আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরী (রাহঃ)এর একান্ত শাগরিদ,জামেয়া মুশাহিদিয়া খাগাইল,কোম্পানীগন্জ এর দীর্ঘকালীন নাজিমে তা’লিমাত,সিলেটের বরেণ্য আলেমে দ্বীন মাওলানা আবদুল মতীন হাফিজাহুল্লাহ এর নামে সেবামূলক সংগঠন ” মাওলানা আব্দুল মতীন ফাউন্ডেশন,সিলেট”র উদ্যোগে ১৪৩৮ হিজরিতে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সম্মিলিতভাবে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে ‘আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ’র অধীনে অনুষ্ঠিত দাওরায়ে হাদিস (মাস্টার্স সমমান) পরীক্ষায় মেধাতালিকার শীর্ষ ৪০-এ অবস্থানকারী সিলেট বিভাগের কৃতী তরুণ আলেমদের সংবর্ধনা ও বৃত্তিপ্রদান করা হলো।

উল্লেখ যে মাওলনা আবদুল মতীন ফাউন্ডেশন,সিলেট একটি সামাজিক ও দ্বীনি সংগঠন,যা সমাজের কল্যাণে কাজ করার প্রত্যয় নিয়ে ২০১০সালে আত্মপ্রকাশ করে।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/সিলেট জেলা প্রতিনিধি  / ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/মঙ্গলবার / ১৩:১২

Add SB24-1

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.