Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ছবি ঘর / “মানবাধিকার কর্মীদের গ্রেফতারে শংকিত নাগরিক সমাজ”, কোন পথে বাংলাদেশ? : জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন
“মানবাধিকার কর্মীদের গ্রেফতারে শংকিত নাগরিক সমাজ”, কোন পথে বাংলাদেশ? : জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন

“মানবাধিকার কর্মীদের গ্রেফতারে শংকিত নাগরিক সমাজ”, কোন পথে বাংলাদেশ? : জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : দেশব্যাপী পুলিশী গ্রেফতার থেকে মানবাধিকার কর্মীরাও রেহাই পাচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান। তিনি বলেন- দেশব্যাপী হঠাৎ যেভাবে গ্রেফতার শুরু হয়েছে এই গ্রেফতারে অপরাধীদের থেকে বেশি নিরাপরাধ ব্যক্তিরা আটক হচ্ছেন। এই আটকের তালিকায় বাদ পরছেন না সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মীরাও। “মানবাধিকার কর্মীদের গ্রেফতারে শুধু আমরা নয়, দেশের নাগরিক সমাজ শংকিত।”

আজ রবিবার বিকালে রাজধানীর কাকরাইলস্থ একটি রেষ্টুরেন্টে জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন-এর উদ্যোগে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও মানবাধিকার কর্মী মোহাম্মদ উল্ল্যাহ রকি-কে বিনা অপরাধে গ্রেফতারের প্রতিবাদে এবং দ্রুত নি:শর্ত মুক্তির দাবীতে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহমুদুল হাসান বলেন, বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক দেশ। দেশের বর্তমান পরিস্থিতে আমরা বুঝতে পারছি খুব শীঘ্রই দেশে একটি নির্বাচন হবে। এহেন পরিস্থিতে দেশে বিনা অপরাধে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের সাথে সাধারণ জনগণকেও পুলিশ গ্রেফতার করে দেশে যে আতঙ্ক ও অস্থিরতা সৃষ্টি করছে তা দেশের সাভাবিক পরিস্থিতিকে নষ্ট করে দেশকে একটি সংঘাতের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। যা গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় হুমকি স্বরূপ।

জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও আহবায়ক মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের যুগ্ম-আহবায়ক মূফতি খোরশেদ আলম, ফরিদউদ্দিন আজাদ, আদর্শ নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আল-আমীন, জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের সদস্য সচিব খন্দকার মহিউদ্দিন মাহী, সহ-সদস্য সচিব খলিলুর রহমান, আমির হোসেন আমু, আদর্শ নাগরিক আন্দোলনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এস.এম কামাল উদ্দিন ইসমাঈল, অর্থ সম্পাদক আবু সাঈদ পাটোয়ারী প্রমূখ।

জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও মানবাধিকার কর্মী মোহাম্মদ উল্ল্যাহ রকি-কে বিনা অপরাধে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ বলেন- কোন পথে বাংলাদেশ? এই দেশের জন্যই কি জীবন দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছেন মহান মুক্তিযোদ্ধারা?? আমরা দেশের তরুণ প্রজন্ম এমন বাংলাদেশ দেখতে চাই না। যে দেশে কথা বলার অধিকার নেই। শান্তিতে বসবাসের ব্যবস্থা নেই। রাস্তায় বাহির হলে ঘুম-খুন করা হয়। নিজ ঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে সাধারণ জনগণের সাথে মানবাধিকার কর্মীদেরও সাদা পোশাকধারীরা উঠিয়ে নিয়ে যায়। এমন বাংলাদেশ আমরা চাই না। আমরা একটি স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র দেখতে চাই। এসময় নেতৃবৃন্দ মানবাধিকার কর্মী মোহাম্মদ উল্ল্যাহ রকি-কে দ্রুত নি:শর্ত মুক্তির দাবী জানান।

কর্মসূচি :
জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন – কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে আগামী ১৮ আগষ্ট ২০১৭ইং, রোজ- বুধবার, সকাল ১০ ঘটিকায়  জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানবাধিকার কর্মী মোহাম্মদ উল্ল্যাহ রকি-কে বিনা অপরাধে গ্রেফতারের প্রতিবাদে এবং দ্রুত নি:শর্ত মুক্তির দাবীতে “মানবাধিকার কর্মীদের গ্রেফতারে শংকিত নাগরিক সমাজ : কোন পথে বাংলাদেশ?” শীর্ষক এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত মানববন্ধনে জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন-এর প্রতিষ্ঠাতা ও আহবায়ক মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান-এর সভাপতিত্বে আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন  নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক জনাব মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, আইন ও শালিস কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক নূর খান লিটন, নাগরিক ফোরামের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহিল মাসুদ প্রমূখ।

উল্লেখ্য, জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোহাম্মদ উল্ল্যাহ রকিকে গত ৪ অক্টোবর’১৭ ইং, বুধবার, সন্ধ্যা ৭/৮টার দিকে তার নিজ জেলা ফেণী দাগনভূইয়া মাষ্টারপাড়ায় অবস্থিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে সাদা পোশাকদারী পুলিশ কোন কারণ ছাড়াই আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় তার ব্যক্তিগত ব্যবহারের ২টি ও দোকানের ১টি [রবি লোড] মোবাইল এবং ১টি ল্যাপটপ ও ধর্মীয় কিছু বই নিয়ে যায়। যার মধ্যে- আল্লামা ইবনুল কাইয়ূমের লেখা আল্লাহ রাসূল কিভাবে নামাজ পড়তেন, নিয়ায ফাতেহপুরীর লেখা মহিলা সাহাবী, ড. মো: হারুন-উর-রশিদের সহীহ নামাজ শিক্ষা, মাওলানা আবদুল মতিনের দৈন্দিন জীবনের দোয়া ও জিকির, মাসুদা সুলতানা রুমীর বিদআতের বেড়াজালে ইবাদত নামে কয়েকটি বই এবং একটি ব্যক্তিগত ডাইরি। এদিকে তার বড় ভাই্ ইউসুফ আলী ও ভাগিনা মাজহারুল ইসলাম মারুফ উক্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আমাদের জানান- মোহাম্মদ উল্ল্যাহ রকি কোন অপরাধের সাথে জড়িত নয়।  তাকে কেন আটক করা হয়েছে সঠিক কারণ জানা না থাকলেও তাদের ধারণা- এলাকার কুচক্র মহলের ইন্ধনে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে রকি ফেণী কারাগারে রয়েছেন।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ঢাকা / ১৫ অক্টোবর ২০১৭ /রবিবার/ ১৭:০৫

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.