Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বিভাগীয় / খুলনা বিভাগ / মহেশপুর পুড়াপাড়া হাটের রাস্তা দখল করে বিল্ডিং : ফুঁসে উঠেছে জনগন
মহেশপুর পুড়াপাড়া হাটের রাস্তা দখল করে বিল্ডিং : ফুঁসে উঠেছে জনগন

মহেশপুর পুড়াপাড়া হাটের রাস্তা দখল করে বিল্ডিং : ফুঁসে উঠেছে জনগন

আতিকুর রহমান টুটুল,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঝিনাইদহ) : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার পুড়াপাড়া বাজারের সরকারী খাস জমি দখল করে হাটের রাস্তার উপর পাকা বিল্ডিং করা হচ্ছে। জনগনের অভিযোগ পেয়ে মহেশপুরের এ্যাসিল্যান্ড ও ইউএনও ভবন ভেঙ্গে ফেলার নির্দেশ দিলেও তা অদৃশ্য কারণে বাস্তবায়ন করা হয়নি। এ নিয়ে বাজারের ব্যবসায়ীরাসহ এলাকাবাসী ক্ষোভে ফুসে উঠেছেন। তারা রাস্তার উপর থেকে পাকা বিল্ডিং অপসারণ করতে মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলামের নিকট গণস্বাক্ষর দিয়েছেন।

অভিযোগে প্রকাশ- স্থানীয় পুড়াপাড়া গ্রামের শ্রীদাম বিশ্বাসের পুত্র শ্রী সুকদেব বিশ্বাস এলাকার প্রভাবশালী কিছু ব্যক্তিদের টাকা দিয়ে বাজারের ভিতর যাওয়ার রাস্তার জোর পূর্বক দখল করে নেয়। জায়গাটি দখল করার পর পাকা বিল্ডিং করতে গেলে বাজারের ব্যবসায়ীরা ও এলাকাবাসী বাধা দিলে সে সময় বিল্ডিং করা বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে সুখদেব বিশ্বাস উক্ত জমি ভূমি অফিসের কতিপয় ব্যক্তিদের ম্যানেজ করে ভূল তথ্য দিয়ে নিজের নামে বন্দোবস্ত না নিয়ে নিজের স্ত্রী পারবতী বিশ্বাস ও ছোট ভাই উত্তম বিশ্বাসের নামে বন্দোবস্ত গ্রহন করেন। অথচ উত্তম বিশ্বাস কোন দিনই দোকানদারী করেননি। সে দির্ঘ দিন আলাদা ভাবে চাতালের ব্যবসার সাথে জড়িত। বর্তমান সে অটোমিলসহ কোটি কেটি টাকার মালিক। জমি বন্দোবস্ত গ্রহন করার পর সুকদেব বিশ্বাস ঐ জমি পুড়াপাড়া বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ী সাধন কুমারের নিকট ১১ লক্ষ টাকায় বিক্রি করে দেয়।

এ ব্যপারে সাধন কুমারকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জমি কেনার কথা স্বীকার করেন। পরে সুকদেব বিশ্বাস স্থানীয় এক আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতার ভাগ্নের কাছে ৫ লাখ টাকায় বিক্রি করে দেন। তিনি ঐ জায়াগায় পাকা বিল্ডিং নির্মাণ করছেন। বর্তমান পাকা বিল্ডিং নির্মাণকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এলাকাবাসির অভিযোগ, মহেশপুরের ইউএনও মোঃ কামরুল ইসলাম গত ১১ সেপ্টেম্বর সরেজমিন উপস্থিত হয়ে বিল্ডিং এর কিছু অংশ ভেঙ্গে দেন এবং বাকী অংশ ২৪ ঘন্টার মধ্যে ভেঙ্গে নেওয়ার নির্দেশ দেন। অবৈধ ভাবে বিল্ডিং নির্মাণ করায় ও বন্দোবস্তকৃত জমি অন্য জায়গায় বিক্রি করায় সুকদেব বিশ্বাসকে ১০ হাজার টাকা জরিমানাও করেন।

অপরদিকে  এ্যাসিল্যান্ড তাছলিমা খাতুন গত ১৪ সেপ্টেম্বর ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা আতিয়ার রহমানকে মৌখিক ভাবে বিল্ডিং ভেঙ্গে দেওয়ার নির্দেশ দেন। এবং ১৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তদন্ত করে রিপোর্ট দিতে বলেন। সে মোতাবেক গত ১৬ সেপ্টেম্বর সার্ভেয়ার আব্বাস উদ্দিন ও তহশীলদার আতিয়ার রহমান এবং সহকারী তহশীলদার জুলফিক্কার আলী ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন। কিন্তু তারপরও নির্মাণধীন পাকা বিল্ডিং এখনো ভাঙ্গা হয়নি। এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয়ে বাজারের ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল ইসলামের নিকট গণস্বাক্ষর করে নির্মাণাধীন বিল্ডিং ভেঙ্গে রাস্তা করার আবেদন করেন।

অভিযোগ উঠেছে, সুখদেব বিশ্বাস কৌশলে পুড়াপাড়া বাজারের আরো ২ জায়গায় অবৈধ ভাবে খাস জমির উপর দোকান নির্মাণ করেছেন। তিনি এই দোকান গুলোর এখনো কোন বন্দোবস্ত গ্রহন করেননি।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি / ১১ অক্টোবর ২০১৭ /বুধবার/ ০০:২৩

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.