Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ইসলাম / কুরআন নাজিলের মাসে কুরআনী শাসন প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে : পীর সাহেব চরমোনাই
কুরআন নাজিলের মাসে কুরআনী শাসন প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে : পীর সাহেব চরমোনাই

কুরআন নাজিলের মাসে কুরআনী শাসন প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে : পীর সাহেব চরমোনাই

সবুজবাংলা২৪ডটকম (বরিশাল) : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, রমজান মাস পবিত্র কুরআন নাজিলের মাস, ইসলামের প্রতিষ্ঠার মাস, বিজয়ের মাস। মুসলমানের দ্বীন ও দুনিয়ার সমৃদ্ধি, পার্থিব ও আধ্যাত্মিক উন্নতি, দৈহিক ও মানবিক শ্রেষ্ঠত্ব আর গৌরব ও মর্যদার অবিস্মরণীয় স্মৃতি বয়ে নিয়ে আসে মাহে রমজান। উন্নত চরিত্র অজর্নের পক্ষে অন্তরায় পাশবিক বাসনার প্রাবল্যকে পরাভূত করত: পাশবিক শক্তিকে আয়ত্ত্বাধীন করা হচ্ছে সিয়ামের তাৎপর্য। কুরআন নাজিলের মহান এ মাসে কুরআনী শাসন প্রতিষ্ঠায় সকলকে কাজ করতে হবে।

পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছিল তা আজো অব্যাহত আছে। তিনি যে কোন ইসলামবিরোধী অপপ্রচার থেকে বিরত থাকতে সরকারকে পরামর্শ দেন।

আজ (সোমবার) সকালে বরিশালের চরমোনাই মাদরাসা ময়দানে ১৫ দিনব্যাপী বিশেষ তালিম তারবিয়াতের ২য় দিনের আলোচনায় পীর সাহেব চরমোনাই উপরোক্ত কথা বলেন। তালিম তারবিয়াতে ধর্মপ্রাণ জনতার উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার মানুষ আল্লাহ আল্লাহ জিকির করে বরিশালের কীর্তনখোলা নদীর তীরে উপস্থিত হতে শুরু হরেছে। এতে পীর সাহেব চরমোনাই, নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম ছাড়াও দরবারের খলিফাগণ আলোচনা করেন।

পীর সাহেব চরমোনাই সকল গীবত-চোগলখুরি ছেড়ে আল্লাহর ইবাদতে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, মূর্তি স্থাপন ও সংরক্ষণ উভয়ই শিরক। মহান আল্লাহ সকল গুনাহ ক্ষমা করলেও শিরক ক্ষমা করবেন না। কোন মুসলমান মূর্তি পক্ষে অবস্থান নিতে পারে না। যারা মূর্তির পক্ষে অবস্থান নিয়েছে তারা মুশরিক, মুসলমান নয়। তিনি মুসলমানদের সেন্টিমেন্ট বিরোধী মূর্তি ধ্বংস করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের দেশব্যাপী স্বাগত মিছিল অনুষ্ঠিত

মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার দাবি জানিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দেশব্যাপী স্বাগত মিছিল ও র‌্যালীর আয়োজন করেছে। কেন্দ্র ঘোষিক কর্মসুচী অনুযায়ী সারাদেশে শান্তিপূর্ণভাবে এবং কোথায় কোথায় পুলিশের বাধার মধ্যে এই স্বাগত মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সারাদেশে স্বাগত মিছিল পূর্ব সমাবেশগুলোতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ৯২ভাগ মুসলমানের দেশে রমজানের পরিবেশ বিঘিœত হলে রোজাদার মুসল্লীগণ ঈমানের তাকিদে রোজার মাসেও আন্দোলন সংগ্রামে নামতে বাধ্য হবে। কাজেই সরকারের উচিত হবে রোজার পরিবেশ রক্ষায় আন্তরিকভাবে কাজ করা। তারা বলেন, সকল মাসের চেয়ে সম্মানিত মাস মাহে রমজান। এ মাসের যথাযথ মর্যাদা রক্ষার জন্য সর্বস্তরের মুসলমানকে এগিয়ে আসতে হবে। রমজানের পরিবেশ বজায় রাখার জন্য সরকারকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্য নাগালের ভিতরে রাখতে হবে। গরীব, অসহায় ও মেহনতি মানুষ যেন অর্ধাহারে ও অনাহারে না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। শ্রমিকের শ্রম কমিয়ে দিয়ে পুরাপুরি মজুরি প্রদান করা সকলের কর্তব্য। পবিত্র রমজান উপলক্ষে সকলকে মারামারি, হিংসা-বিদ্বেষ, পরনিন্দা ও চোগলখোরী ছেড়ে দিয়ে আত্ম সংযম অর্জন করতে হবে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত যেসব জেলায় বিক্ষোভ হয়েছে সেগুলো হলো- নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা জেলা পূর্ব ও পশ্চিম, চাঁদপুর, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, চট্টগ্রাম মহানগর, কক্সবাজার, সিলেট, বরিশাল, ভোলা উত্তর ও দক্ষিণ, পটুয়াখালী, পিরোজপুর, ঝালকাঠী, বরগুনা, খুলনা, মাগুরা, যশোর, ঝিনাইদহ, চুয়াডাঙ্গা, নাটোর, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, রংপুর, বগুড়া, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাও, জয়পুরহাটসহ দেশের অধিকাংশ জেলায় পুলিশী বাধা উপেক্ষা করে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/বরিশাল জেলা প্রতিনিধি / ২৯ মে ২০১৭ / সোমবার/ ১৪:১৭

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.