Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
প্রচ্ছদ / জাতীয় / শেখ হাসিনা দেশের সকলের জন্য সমান সুযোগের ব্যবস্থা করেছেন : ভূমিমন্ত্রী
শেখ হাসিনা দেশের সকলের জন্য সমান সুযোগের ব্যবস্থা করেছেন : ভূমিমন্ত্রী

শেখ হাসিনা দেশের সকলের জন্য সমান সুযোগের ব্যবস্থা করেছেন : ভূমিমন্ত্রী

জেলা সংবাদদাতা ,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সকল নাগরিকের জন্য সমান অধিকার ও সুযোগ ভোগ করার ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছেন।

২৬ মে শুক্রবার আটঘরিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্ত দুস্থ মহিলাদের ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, সুবর্ণ নাগরিকদের মাঝে পরিচয়পত্র প্রদান এবং আটঘরিয়া উপজেলাধীন ক্ষুদ্র জাতিস্বত্তা, নৃগোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ভুক্ত ছাত্রছাত্রীদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আকরাম আলীর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহুরুল হক, পাবনা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক আ. মোমিন, সমাজসেবা অফিসার আসাফুদ্দৌলাহ, আটঘরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) গোলাম মোর্শেদ, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শাকিলা জাহান উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, এদেশে অতীতে নূরুল আমিন সরকার, ইয়াহিয়া সরকার, জিয়া সরকারসহ অনেক সরকার প্রধান দেশ পরিচালনা করেছেন, কিন্তু শেখ হাসিনার মতো করে বয়স্ক, বিধবা, পঙ্গু, স্বামী পরিত্যক্তাদের কথা আগে কোনো সরকারই ভাবেননি।

মন্ত্রী বলেন, একমাত্র শেখ হাসিনা এ শ্রেণির মানুষের দুঃখ, দুর্দশা বুঝতে পেরেছিলেন এবং তাঁর সরকারই গরীব, দুঃখী ও দুস্থদের সহায়তা প্রদান অব্যাহত রেখেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারাদেশে উন্নয়নের জোয়ার বয়ে চলেছে উল্লেখ করে ভূমিমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার সরকার ১৯৯৬ সাল থেকে এসব ভাতা চালুসহ বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বের কারণেই দারিদ্র্য বিমোচনে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছানো, রাস্তাঘাট সংস্কার, পাকা রাস্তা দিয়ে এলাকার মানুষজনের চলাচলের সুবিধা করে দেয়া এ সরকারের অঙ্গীকার ছিল। সরকার তা পালন করে চলেছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের গৃহহীনের জন্য ঘর তৈরি করে দিচ্ছেন এবং তাদের জন্য কর্মসংস্থানেরও ব্যবস্থা করছেন। মন্ত্রী সকলকে সরকারের উন্নয়ন কাজে অংশ নেয়ারও আহ্বান জানান।

মন্ত্রী আটঘরিয়া উপজেলায় ৩ হাজার ৫০৮ জনকে ৫০০ টাকা হারে বয়স্কভাতা, ১ হাজার ৭৩০ জন বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্ত দুস্থ মহিলাকে ৫০০ টাকা হারে, অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ৮৩০ জনকে ৬০০ টাকা হারে, দলিত, হরিজন ও বেদে জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের জন্য ২১ জনকে ৬০০ টাকা হারে, হিজড়া জনগোষ্ঠীর বিশেষ ভাতা কর্মসূচিতে ৬ জনকে ৬০০ টাকা হারে, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান কর্মসূচিতে ১৭০ জনকে প্রাথমিক ৬০০ টাকা, মাধ্যমিক ৮০০ টাকা ও কলেজ পর্যায়ে ১২০০ টাকা করে উপবৃত্তি প্রদান করেন। আজ নতুন করে আরও ৪০৯ জন ভাতাভোগীকে ২০ লাখ ২৩ হাজার ৪০০ টাকা ভাতা প্রদান করা হয়েছে।

মন্ত্রী ২ হাজার ৫৫০ জন সুবর্ণ নাগরিককে পরিচয় পত্র প্রদান করে আরো বলেন, যারা এতদিন সরকারি ভাতা পাননি, তারা সবাই এখন থেকে পর্যায়ক্রমে সরকারি ভাতা পেতে থাকবেন।

মন্ত্রী এর আগে আটঘরিয়া উপজেলা পরিষদ ৪ তলা কমপ্লেক্স ভবন ও হলরুম এবং উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার নতুন কার্যালয় উদ্বোধন করেন।

(বাসস)
সবুজবাংলা২৪ডটকম/ ঢাকা/ ২৬ মে ২০১৭ /শুক্রবার/ ১৭: ০৫

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.