Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বিভাগীয় / ঢাকা বিভাগ / ঢাকা / ফররুখ আহমদ ছিলেন গণমানুষের কবি : জেবেল রহমান গাণি
ফররুখ আহমদ ছিলেন গণমানুষের কবি : জেবেল রহমান গাণি

ফররুখ আহমদ ছিলেন গণমানুষের কবি : জেবেল রহমান গাণি

নিজস্ব প্রতিবেদক,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষনেতা ও বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি বলেছেন, বাংলাদেশের মুসলমানদের মধ্যে সাড়া জাগিয়েছেন যে দুইজন কবি তাদের মধ্যে কবি ফররুখ আহমদ অন্যতম। তার কবিতা পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত ছিল। কিন্তু কুপমুন্ডুকতায় ভোগা শাসকেরা আবার তা পাঠ্যপুস্তক থেকে সরিয়ে দিয়েছে। তার কবিতা ছাড়া মুসলমানদের জীবন পূর্ণ হতে পারে না। তিনি শিশু-কিশোরসহ সবার জন্য লিখেছেন।

আজ শুক্রবার সকালে নয়াপল্টনস্থ যাদু মিয়া মিলনায়তনে কবি ফররুখ আহমেদের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ভাসানী সাহিত্য-সাংস্কৃতিক পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জেবেল রহমান গানি আরো বলেন, বাংলাদেশের কবি, গণমানুষের কবি ফররুখ আহমদ। তার কবিতায় বাংলাভাষা ও বাংলাদেশের মানুষের জীবনচিত্র অসাধারণভাবে ফুটে উঠেছে। তার কবিতায় তিনি তুলে এনেছেন বাংলার শেকড় ও সংস্কৃতি।

ভাসানী সাহিত্য সাংস্কৃতিক পরিষদের আহ্বায়ক মতিয়ারা চৌধুরী মিনু‘র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন ন্যাপ যুগ্ম মহাসচিব স্বপন কুমার সাহা, মোঃ নুরুল আমান চৌধুরী, নগর সদস্য সচিব মোঃ শহীদুননবী ডাবলু, পরিষদ সদস্য সচিব সোলায়মান সোহেল, যুগ্ম আহ্বায়ক এম.এ. মুক্তাদীর, সাবরিনা সুলতানা, মোঃ আবদুল্লাহ আল-কাউছারী প্রমুখ।

এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া বলেন, ফালানী কাঁটাতারে ঝুলে থাকে। আমাদের বিজিবি সদস্যদের ধরে নিয়ে মিয়ানমারের মতো দুর্বল দেশও শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে। আমরা কোনো প্রতিবাদ করি না। আমরা ক্ষমতার জন্য লড়াই করি। কাজী নজরুল ইসলাম, ইসমাইল হোসেন সিরাজী, কবি ফররুখ আহমদকে স্বাধীনতাবিরোধী প্রমাণের চেষ্টা করছি। ফররুখ আহমদ যদি স্বাধীনতার পর নিজের আদর্শ বিসর্জন দিতেন তাহলে তার কোনো সমস্য হতো না। কিন্তু তিনি তা না করায় তাকে বিভিন্নভাবে অপমানিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আরব্য উপন্যাসের দুঃসাহসী সার্থক নাবিক সিন্দাবাদ কঠিন বিপদসঙ্কুল মুহূর্তে জাহাজের হাল ধরে যেমনি জাহাজকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করে নিরাপদে সমুদ্রবন্দরে নোঙর করাতে সক্ষম হয়েছিলেন, তেমনি অসহায়তা-অলসতা ও পশ্চাদপদতার অন্ধকার ঘূর্ণাবর্তে নিপতিত মানবতা রক্ষার্থে আমাদের সাহিত্য ভূবনের এক দুঃসাহসী ও মানবতাবাদি কবি হলেন ফররুখ আহমদ।

সভাপতির বক্তব্যে মতিয়ারা চৌধুরী মিনু বলেছেন, কবি ফররুখ ছিলেন গণজাগরণের কবি। তিনি মানুষের মধ্যে চেতনাবোধ তৈরি করে গেছেন। স্বাধীনতা, সাম্য ও মুক্তির চেতনা। আজকে কবিদের মধ্যে সেই জাগরণ নেই। দেশের মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা নেই। চলাফেরার স্বাধীনতা নেই। কিন্তু কবি-সাহিত্যিকেরা নীরবতা পালন করছেন। ফররুখ বেঁচে থাকলে অবশ্যই জাগরণের কথা বলতেন।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ ঢাকা / ১০ জুন ২০১৬ /শুক্রবার/ ১২:২৪

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.