Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ইসলাম / “শিক্ষা আইন বাস্তবায়িত হলে মুসলিম জাতি সত্তার অস্তিত্ব বিপন্ন হবে” : ইসলামী ঐক্য আন্দোলন
“শিক্ষা আইন বাস্তবায়িত হলে মুসলিম জাতি সত্তার অস্তিত্ব বিপন্ন হবে” : ইসলামী ঐক্য আন্দোলন

“শিক্ষা আইন বাস্তবায়িত হলে মুসলিম জাতি সত্তার অস্তিত্ব বিপন্ন হবে” : ইসলামী ঐক্য আন্দোলন

স্টাফ রিপোর্টার,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : ইসলাম বিরোধী শিক্ষানীতি ২০১০,প্রস্তাবিত শিক্ষা আইন ২০১৬ ও দেশের সার্বভৌমত্ব বিরোধী সিলেবাসের ধ্বংসাত্মক পরিণতি পর্যালোচনা ও করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় জাতীয় নেতৃবৃন্দ বলেছেন, প্রস্তাবিত শিক্ষা আইন ২০১৬ বাস্তবায়িত হলে দেশে ইসলামী শিক্ষা ও মুসলিম জাতি সত্তার অস্তিত্ব বিপন্ন হবে। কওমী মাদ্রাসাসমূহ ধ্বংস হয়ে যাবে। ফোরকানিয়া মকতব, হেফযখানা, ইসলামিক কিন্ডারগার্ডেন জাতীয় দ্বীনি শিক্ষার যাবতীয় চর্চা আইনত বন্ধ করা হবে। কারণ শিক্ষা আইন অনুযায়ী সরকারী অনুমোদনের বাইরে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা নির্ধারিত সিলেবাসের বাইরে কোন বই পড়ানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত ও অভিযুক্ত ব্যক্তিকে জেল জরিমানা ভোগ করতে হবে।

তারা বলেন, ৮ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রাইমারী শিক্ষা সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাধ্যতামূলক চালু করার অর্থ দাঁড়াবে মাদ্রাসা শিক্ষা সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যাওয়া। অথচ বিদেশি ইংরেজি ভার্সনের স্কুলগুলোতে শুধু বাংলা ও বাংলাদেশ স্টাডিজ সিলেবাসভুক্ত করার শর্তারোপ করা হয়েছে এবং ৫ম ও ৮ম শ্রেণীর পাবলিক পরীক্ষার বেলায়ও ছাড় দেয়া হয়েছে।

শনিবার সকালে ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের উদ্যোগে পুরানা পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের আমির ড. মওলানা  মুহাম্মদ ঈসা শাহেদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান, মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব হাফেজ অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুস আহমদ, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মহাসচিব আলহাজ কাজী আবুল খায়ের, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের নায়েবে আমির প্রিন্সিপাল শওকাত হোসেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ঢাকা মহানগরী সভাপতি হাফেজ অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমামায়েত উদ্দীন, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, দৈনিক ইনকিলাবের সহকারী সম্পাদক জনাব মেহেদী হাসান পলাশ, বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের সভাপতি মাওলানা মামুনুল হক, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, ডা সাখাওয়াত হুসাইন, মহানগরী আমির মোস্তফা বশীরুল হাসান, কেন্দ্রীয় অফিস সম্পাদক মাওলানা আবুবকর সিদ্দিক, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের প্রচার সম্পাদক মাওলানা আজিজুর রহমান হেলাল, জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়ার কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ আবদুল কাদির প্রমূখ।

বক্তাগণ  আরও বলেন, প্রস্তাবিত শিক্ষা আইনে ১০ শ্রেণীর ইসলামিয়াত বা ধর্মীয় শিক্ষা বিলুপ্ত করা হয়েছে। তার ফলশ্রুতি হচ্ছে, শতকরা ৯২ জন মুসলমানের দেশের শতকরা ৯০ ভাগ শিক্ষার্থী ইসলাম সম্পর্কে সম্পূর্ণ অজ্ঞ হবে এবং অনেকে চরম ইসলাম বিদ্বেষী, নাস্তিক ও মুরতাদ হয়ে বের হবে। বর্তমানে সিলেবাসে হিন্দু ও নাস্তিকদের দিয়ে লেখানো হিন্দুত্ববাদী ধ্যান ধারণা, দেশের অস্তিত্ব ও সার্বভৌমত্ব বিরোধী প্রবন্ধ ও কবিতা তার জ্বলন্ত প্রমাণ।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ ঢাকা / ২৯ মে ২০১৬ /রবিবার/ ০১:০৬

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.