Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বিভাগীয় / ঢাকা বিভাগ / ঢাকা / সঙ্কট উত্তরণে প্রয়োজন অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন : আব্দুল্লাহ আল নোমান
সঙ্কট উত্তরণে প্রয়োজন অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন : আব্দুল্লাহ আল নোমান

সঙ্কট উত্তরণে প্রয়োজন অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন : আব্দুল্লাহ আল নোমান

স্টাফ রিপোর্টার,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : দেশে জাতীয় সঙ্কট চলছে মন্তব্য করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, গুম-খুন করে সঙ্কট সমাধান করা যাবে না। সরকারের প্রতি আহবান জানাই- এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য গোলটেবিল আলোচনায় বসুন। আলোচনার মাধ্যমে সমাধান বের হয়ে আসবে। একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রয়োজন।

আজ শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জিয়া স্বর্ণপদক ও জিসাস নতুন তারা সাংস্কৃতিক পদক-২০১৫ উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, বাংলাদেশের শাসন ব্যবস্থায় গণতন্ত্রের বিকল্প নেই। সেজন্য চলমান সঙ্কট নিরসনে একটি অংশগ্রহণমুলক নির্বাচন প্রয়োজন। আর এই নির্বাচনের প্রক্রিয়া ঠিক করতে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে নিয়ে একটি গোলটেবিল আলোচনার ভিত্তিতে সমাধান বের করতে হবে।

দেশে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, বিনা ভোটের যে সরকার ক্ষমতায় আছে তারা তাদের ওয়াদা রাখতে পারেনি। শপথের কথা ভুলে গেছে। সেজন্য সরকারের একজন এমপি নির্বিচারে শিশুকে গুলি করে আহত করতে পারে।

ইতালি ও জাপানের একজন নাগরিক খুন হওয়ার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, দেশে আইনের শাসন এবং প্রয়োগ নেই বলেই এই ধরনের ঘটনা ঘটছে। সাবেক মন্ত্রী বলেন, দলীয় সঙ্কটের বাইরে বড় রাজনৈতিক সঙ্কট চলছে। তথাকথিত ভোটরবিহীন সংসদ হওয়ার কারণে এর কার্যক্রম স্থগিত হয়ে পড়েছে। এক ধরনের গুমোট পরিস্থিতির মধ্যে আছে দেশের মানুষ।

নোমান বলেন, বর্তমান সরকারের সময় শুধু রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা গুম-খুনের শিকার হচ্ছে না, সাধারণ মানুষও এর শিকার হচ্ছে। যে দেশে আইনের শাসন থাকে না সে দেশে স্বভাবগতভাবে অসৎ ও দুর্নীতি পরায়নদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যায়। এমন দেশে আমরা বসবাস করছি যে সরকার দলীয় একজন সংসদ সদস্য প্রকাশ্যে একজন শিশুকে গুলি করছে। প্রকাশ্যে মহিলাদের শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের লজ্জা লাগে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল নিরাপত্তার কারণে বাংলাদেশে আসছে না। এর সম্পূর্ণ দায়ভার সরকারের।

তিনি আরো বলেন, একটি দেশের সংস্কৃতি, সেই দেশের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অবস্থা থেকে বিচ্ছিন্ন নয়। আমাদের দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংস্কৃতিকে বিকশিত করেছে। দেশের গণতন্ত্রের জন্য যে লড়াই চলছে এ লড়াইয়ে আমরা জিতব। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে। বিএনপির এই নেতা বলেন, বিদেশি সংস্কৃতির অনুপ্রবেশে দেশীয় সংস্কৃতি হারিয়ে যাচ্ছে। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান দেশীয় সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করার জন্য শিশু মন্ত্রণালয় ও শিশু একাডেমি গড়ে তুলেছিলেন। জিসাস আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান আবুল হাশেম রানা।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ ঢাকা /০৩ অক্টোবর ২০১৫ / শনিবার / ১৭:৪৪

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.