Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / জাতীয় / ভাইবার ও ট্যাঙ্গো বন্ধ করল সরকার
ভাইবার ও ট্যাঙ্গো বন্ধ করল সরকার

ভাইবার ও ট্যাঙ্গো বন্ধ করল সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক,সবুজবাংলা২৪ডটকম (ঢাকা) : ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভয়েস কল আদান-প্রদানের জনপ্রিয় ভিওআইপি ও ইন্সট্যান্ট মেজেসিং অ্যাপস ভাইবার এবং ট্যাঙ্গো সাময়িক বন্ধ করে দিয়েছে সরকার।

আজ সোমবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত এটি বন্ধ রাখতে মোবাইল ফোন অপারেটর ও ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন বিটিআরসি।

তবে ডাক ও টেলিকম বিভাগ সূত্র থেকে বলা হচ্ছে, এ সময়সীমা অন্তত সপ্তাহখানেক বাড়ানো হতে পারে।

দেশে-বিদেশে ইন্টারনেটের মাধ্যম হিসেবে ভাইবার ও ট্যাঙ্গো ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এর মাধ্যমে স্বল্প খরচে এবং ফ্রি কথা বলতে পারত মানুষ। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাতে আকস্মিকভাবে এই দু’টি জনপ্রিয় মাধ্যম বন্ধ করেছে বিটিআরসি। ফলে দেশে-বিদেশের অনেক মানুষ যোগাযোগ করার ক্ষেত্রে দুর্ভোগে পড়েছেন। এ নিয়ে অনেকেই উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন।

ভাইবার ও ট্যাঙ্গো বন্ধ রাখার বিষয়টি জানিয়ে ঢাকায় অবস্থিত বিভিন্ন দেশের দূতাবাসেও চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে বিটিআরসি। শনিবার রাত ১২টা থেকে ভাইবার ও ট্যাঙ্গো বন্ধ রাখা হয়েছে।

কমিশন সচিব মো: সারওয়ার আলম ভাইবার ও ট্যাঙ্গো বন্ধ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে ওয়াইফাই ব্যবহার করে সেবাটি কাজে লাগানো যাচ্ছে।
সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ফিরোজ সালাহউদ্দিন জানিয়েছেন, সফটওয়্যারের টেকনিক্যাল স্ক্রিনিং শেষ হওয়া মাত্রই গ্রাহকেরা তা উপভোগ করতে পারবেন।’

তবে বিটিআরসির একটি সূত্রের দাবি ভাইবার ও ট্যাঙ্গো ব্যবহার করে সরকারবিরোধী নাশতকতার শঙ্কা থাকায়  তারা এ ব্যবস্থা নিয়েছে।
থ্রিজি সেবা চালু ও দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবার সুবাদে দেশব্যাপী ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ট্যাঙ্গোর ব্যবহার উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। এ সেবার কারণে মোবাইল ফোন সেবার মূল যে ভিত্তি ভয়েস ও টেক্সস্ট মেসেজ সেটি হুমকির মুখে পড়েছে।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ ঢাকা / ১৯ জানুয়ারি,২০১৫ /সোমবার / ০৪:১৪

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.