Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বিভাগীয় / চট্রগ্রাম বিভাগ / কুমিল্লা / বাংলাদেশ পোয়েটস ক্লাবের ময়নামতি-লালমাই পাহাড়ে সাহিত্য পর্যটন সফর
বাংলাদেশ পোয়েটস ক্লাবের ময়নামতি-লালমাই পাহাড়ে সাহিত্য পর্যটন সফর

বাংলাদেশ পোয়েটস ক্লাবের ময়নামতি-লালমাই পাহাড়ে সাহিত্য পর্যটন সফর

সবুজবাংলা২৪ডটকম (কুমিল্লা) : বাংলাদেশ পোয়েটস ক্লাবের উদ্যোগে পোয়েটস ক্লাবের সভাপতি কবি  মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী ও কুমিল্লার কবি শাহানা হকের উদ্যোগে কুমিল্লায় এক সাহিত্য পর্যটন সফরের আয়োজন করা হয়।

গতকাল শুক্রবার কুমিল্লার ময়নামতি, বৌদ্ধ বিহার এবং লালমাই পাহাড় দর্শনের আয়োজন করা হয়। দুপুরে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (বার্ড) এর ক্যান্টিনে মধ্যাহ্নভোজের সুব্যবস্থা করা হয়। বিকালে লালমাই পাহাড়ের চূড়ায় শ্রী শ্রী চন্ডী মন্দির প্রাঙ্গণে এক সাহিত্য পর্যটন সভার আয়োজন করা হয়।

কবি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ব বাঙালি সম্মেলন ও দক্ষিণ এশিয়া সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদের সভাপতি বিপ্লবী কবি মুহম্মদ আবদুল খালেক। আরো বক্তব্য রাখেন বীরমুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর আলম কমল, কবি আলী মুহাম্মদ লিয়াকত, কবি শাহানা হক, বীরমুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন, মোসতাক আহমেদ ভাসানী, কবি শহীদুল্লাহ আনসারী। আরো উপস্থিত ছিলেন আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, লায়ন মোঃ মোস্তাফিজুল আজম মামুন, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী মোঃ সাহিদুল ইসলাম, কবি শিউলী, সিলেটের প্রভাষক হুমায়রা বেগম মনি, প্রভাষক দিপালী দাসসহ অর্ধ শতাধিক কবি সাহিত্যক প্রমুখ।

গুণী কবি-সাহিত্যিক ও মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে সাহিত্য সভা শেষে সাহিত্য পর্যটন সম্মাননা প্রদান করা হয়। কবিতায় অসাধারণ অবদানের জন্য বিপ্লবী কবি মুহম্মদ আবদুল খালেক, মুক্তিযুদ্ধে জাহাঙ্গীর আলম কমল, কবিতায় কবি আলী মোঃ লিয়াকত, কবি শিউলী, সাহিত্যিক শহীদুল্লাহ আনসারী কে সাহিত্য পর্যটন সম্মাননা প্রদান করা হয়।

কবি মুহম্মদ আবদুল খালেক অনুষ্ঠানের মধ্যমনি হিসেবে তার বক্তব্যে বলেন, এই ধরনের সাহিত্য পর্যটনে কুমিল্লার উল্লেখযোগ্য স্থান বিশেষ করে ময়নামতি, বৌদ্ধ বিহার ও লালমাই পাহাড় এবং শ্রী শ্রী চন্ডী মন্দির পরিদর্শন করা হয়। সর্বশেষে লালমাই পাহাড়ের শীর্ষে সাহিত্য সভায় কবি সাহিত্যিকবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে এই ধরনের পর্যটন সাহিত্য সফর করলে সাহিত্যে পর্যটনের গুরুত্ব স্থান পাবে।

কবি আবদুল খালেক আরো বলেন, বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করতে হবে। বিশ্বমানের সাহিত্য সৃষ্টি করতে হবে। তার জন্য বিশ্বমানের সাহিত্য পড়তে হবে এবং নতুন সাহিত্য সৃষ্টি করতে হবে। বাংলাভাষাকে আন্তর্জাতিকমানের করতে হবে। জাতিসংঘে দাফতরিক ভাষার মর্যাদা আদায় করতে হবে। তার জন্য বিশ্বের সকল বাঙালিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে বাংলাভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

সবুজবাংলা২৪ডটকম/ কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি /০৯ আগস্ট ২০১৪ / শনিবার/ ২০:১৫ 

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.