Gmail! | Yahoo! | Facbook | Bangla Font
প্রচ্ছদ / খেলা / দাবায় উন্নতি করতে প্রয়োজন বয়সভিত্তিক প্রতিযোগিতা
দাবায় উন্নতি করতে প্রয়োজন বয়সভিত্তিক প্রতিযোগিতা

দাবায় উন্নতি করতে প্রয়োজন বয়সভিত্তিক প্রতিযোগিতা

স্পোর্টস প্রতিবেদক (সবুজবাংলা২৪ডটকম): ১৯৮৭ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত দাবায় বাংলাদেশ পেয়েছে পাঁচজন গ্র্যান্ডমাস্টার। তবে এরপর আসেনি আর কোনো সাফল্য। গ্র্যান্ডমাস্টার পর্যায়ে নতুন দাবাড়ু উঠে আসতে প্রয়োজন বয়সভিত্তিক ও স্কুলভিত্তিক টুর্নামেন্ট, জানালেন দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম গ্র্যান্ডমাস্টার নিয়াজ মোর্শেদ।

Sports-Daba--17-12-13১৯৭৪ সালে দাবা ফেডারেশন গঠিত হবার পর বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশের সাফল্যের শুরুটা হয় ১৯৮১ সালে। ঐ বছর প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে আন্তর্জাতিক মাস্টারের খেতাব পান নিয়াজ মোর্শেদ। এরপর ১৯৮৭ সালে দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম দাবাড়ু হিসেবে গ্র্যান্ড মাস্টার টাইটেল পান নিয়াজ। এরপর কেটে গেছে ২৬ বছর। কি অবস্থায় আছে এখন বাংলাদেশের দাবা?

স্বাধীনতার ৪২ বছরে বাংলাদেশের অর্জন পাঁচজন গ্র্যান্ডমাস্টার। ২০০৮ সালে এনামুল হোসেন রাজিবের পর দীর্ঘদিন কোনো গ্র্যান্ডমাস্টারের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম গ্র্যান্ডমাস্টারের মতে ছোট থেকেই শিশুদের মনে দাবার বীজ বপন করতে হবে। এতে কোরে এই খেলার প্রতি আকৃষ্ট হয়েই উঠে আসবে নতুন দাবাড়ু।

ভালো মানের দাবাড়ু পেতে প্রতিযোগিতামূলক দাবায় অংশ নিতে হবে দাবাড়ুদের। আর এজন্য আয়োজন করতে হবে বয়সভিত্তিক আর স্কুলভিত্তিক টুর্নামেন্ট।

মন্তব্য

Scroll To Top
Copy Protected by Chetans WP-Copyprotect.